২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৮ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৪০১৯ | আইসোলেসনে ১৫,৭৫৬ জন

0 0
Read Time:7 Minute, 25 Second

দ্যা ডেইলি নিউজ –TDNB/02 July 2020/174

করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনভাইরাস সংক্রমণে ৩৮ জন মারা গেছে এবং নতুন করে ৪ হাজার ০১৯ জনের মধ্যে সংক্রমণ ধরা পড়েছে ।

সময় আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু চিকিৎসাধীন হাসপাতালে আইসোলেসনে কোয়ারেন্টিনে
২৪ ঘণ্টায় ৪০১৯ ৪৩৩৮ ৩৮ -৩৫৭ -১৪৫ ৯৬০ ৩১৬৮
 মোট  ১৫৩,২৭৭ ৬৬,৪৪২ ১,৯২৬ ৮৪,৯০৫ ৪,৮৭৩ ১৫,৭৫৬ ৬৩,৬০৮

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের ৭০ টি পরীক্ষাগারে ১৮ হাজার ৩৬২টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৮ লাখ ০৫ হাজার ৬৯৭টি ।

২৪ ঘণ্টায় নমুনা বিবেচনায় শনাক্ত রোগীর হার ২১ দশমিক ৮৯ শতাংশ। ইউনিভারসেল  মেডিকেল কলেজে ও হাসপাতালে কোভিড-১৯ পরীক্ষা শুরু হওয়ায় দেশে এখন মোট ৭০টি পরীক্ষাগারে নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) ডাঃ নাসিমা সুলতানা এক ব্রিফিংয়ে বলেন, দেশে এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৫৩ হাজার ২৭৭ জনে যা নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ১০ শতাংশ।

তিনি আরও জানান, মোট মৃতের সংখ্যা এখন ১,৯২৬ এবং মৃতের হার ১ দশমিক ২৬ শতাংশ ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এই কর্মকর্তা আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি রোগী ও বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নেওয়া রোগীদের মধ্যে আরও ৪ হাজার ৩৩৮ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে সুস্থ রোগীর সংখ্যা ৬৬ হাজার ৪৪২ জনে দাঁড়িয়েছে। আর শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪৩ দশমিক ৩৫ শতাংশ ।

নাসিমা সুলতানা বলেন, গত এক দিনে যারা মারা গেছেন, তাদের মধ্যে ৩২ জন পুরুষ এবং ৬ জন নারী। ৩৩ জন হাসপাতালে এবং ৫ জন বাড়িতে মারা গেছেন।

এই ৩৮ জনের মধ্যে ২ জনের বয়স ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে। এছাড়া ৭ জনের বয়স ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে, ৮ জনের বয়স ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে, ১৬ জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে, ২ জনের বয়স ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে, ২ জনের বয়স ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে, এবং ১ জনের বয়স ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ছিল।

তাদের মধ্যে ১১ জন ঢাকা বিভাগের, ১২ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, ৫ জন খুলনা বিভাগের, ৫ জন রাজশাহী বিভাগের, ১ জন রংপুর বিভাগের, ২ জন সিলেট বিভাগের এবং ২ জন বরিশাল বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন।


এই ১৯২৬ জনের মধ্যে;  ৮৩৮ জনের বয়স ৬০ এর উপরে যা ৪৩.৩১% । এছাড়া ৫৬০ জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে যা ২৯.০৮%, ২৮৫ জনের বয়স ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে যা ১৪.৮০%, ১৪৬ জনের বয়স ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে যা ৭.৫৮%, ৬৭ জনের বয়স ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ছিল যা ৩.৪৭%, ২২ জনের বয়স ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ছিল যা ১.৪৪%, এবং ১২ জনের বয়স ০ থেকে ১০ বছরের মধ্যে ছিল যা ০.৬২%।


সারাদেশে মোট সাধারন বেডের সংখ্যা ১৪ হাজার ৪৭৫টি ও আইসিউ রয়েছে ৩৯২ টি, যার মধ্যে ঢাকায় সাধারন বেডের সংখ্যা ৬০৭৫ টি ও আইসিউ ১৪৫ টি রয়েছে । তবে সারাদেশে মোট ১১ হাজার ১৪১টি  অক্সিজেন সিলিন্ডার রয়েছে ।

গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড-১৯ রোগ নিয়ে সারাদেশে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৫১৮ জন, বিপরীতে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৭৩৬ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ৪ হাজার ৬২৮জন হাসপাতালে সাধারণ শয্যায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন এবং আইসিউতে রয়েছেন ২১০ জন।

২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন ৯৬০ জন ও ছাড় পেয়েছেন ৭৭৫ জন । এ নিয়ে বর্তমানে আইসোলেশনে রয়েছেন ১৫,৭৭৫ জন ।

২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন ২৮৯৪ জন ও ছাড় পেয়েছেন ৩১৬৮ জন । তবে, কোয়ারেন্টিনে আছেন ৬৩,৬০৮ জন।

২৪ ঘণ্টায় স্ক্রিনিং করা হয়েছে ১৪৬৪ জন, এ পর্যন্ত ৭ লাখ ৩৮ হাজার ৯২০ জনকে ।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল ৮ মার্চ, তার দশ দিনের মাথায় প্রথম মৃত্যুর খবর আসে। গত ২২ জুন মৃতের সংখ্যা দেড় হাজার ছাড়িয়ে যায় এবং দেশে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ লাখ ছাড়িয়ে যায় ১৮ জুন ।


জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের টালিতে শনাক্ত রোগীর সংখ্যায় শীর্ষ দেশগুলোর তালিকায় বাংলাদেশ এখন রয়েছে ১৮ নম্বরে।

প্রথম রোগী শনাক্তের ২৮দিন পর ৬ এপ্রিল শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১০০ ছাড়ায়। ১৪ এপ্রিল এক হাজার ছাড়ায় শনাক্ত রোগী। এরপর ৪ মে ১০ হাজার, ১৫ মে ২০ হাজার এবং ২ জুন পঞ্চাশ হাজার ছাড়িয়েছিল শনাক্ত রোগীর সংখ্যা।

এরপর মাত্র ১৬ দিনে গত ১৮ জুন দেশে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ লাখ ছাড়িয়ে যায়। বৃহস্পতিবার তা দেড় লাখে পৌঁছাতে সময় লাগল ১৪ দিন।  

বাংলাদেশে ১৮ মার্চ প্রথম কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ২০ এপ্রিল মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়ায়। ১০ জুন মৃতের সংখ্যা হাজারের ঘর পেরিয়ে যায়।

এরপর ১২ দিনেই মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়ে যায় গত ২২ জুন। এখন তা পৌঁছে গেছে দুই হাজারের কাছাকাছি।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের টালি অনুযায়ী, সারা বিশ্বে এ পর্যন্ত ১ কোটি ৭ লাখ ৪ হাজারের বেশি কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে, মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ১৬ হাজার ৪৩৪ জনের।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %