আত্মহত্যার আগের রাতে কার ফোন দেখে চিন্তায় পড়েন সুশান্ত? দানা বাঁধছে রহস্য

0 0
Read Time:6 Minute, 58 Second

দ্যা ডেইলি নিউজ / ID/19 06 2020/TDNB/000110

 ​সুশান্ত সিং রাজপুত কেন আত্মহত্যা করলেন, তা নিয়ে ধ্বন্দে পুলিস। তবে সুশান্তের মৃত্যুর রহস্য পরপর ৩টি ফোন কলের উপর অনেকটা নির্ভর করছে বলে জানা যাচ্ছে।

ব্রেকিং বুম-এর খবর অনুযায়ী, আত্মহত্যার আগের রাতে অর্থাত ১৩ জুন সুশান্তের মোবাইলে একটি ফোন আসে। তারপরই নাকি চিন্তায় পড়ে যান সুশান্ত। ওই ফোনের পর বন্ধু মহেশ শেঠি এবং বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীকে ফোন করেন সুশান্ত। যদিও ওই রাতে রিয়া কিংবা মহেশ, কেউ সুশান্তের ফোনের উত্তর দেননি।

পরে সুশান্তের ফোন দেখে, তাঁকে পালটা কল করেন বন্ধু মহেশ শেঠি। তবে ১৪ জুন মহেশের ফোনেরও কোনও উত্তর দেননি সুশান্ত। ১৩ জুন রাতে সুশান্তকে ফোন কে করেন এবং সুশান্তই বা কেন পালটা পরপর ২টি ফোন করেন, সেই সব তথ্যই ভাবাচ্ছে পুলিসকে।

অন্যদিকে প্রাক্তন ম্যানেজার দিশা সালিয়ানের আত্মহত্যার খবর পেয়ে বিমর্ষ হয়ে পড়েন সুশান্ত। দিশার আত্মহত্যার খবর পাওয়ার পর আত্মার শান্তি কামনা করেন সুশান্ত। তবে দিশার আত্মহত্যার পরই নাকি সুশান্তের ফ্ল্যাট ছেড়ে চলে যান রিয়া। দিশার মৃত্যুর পর কেন রিয়া সুশান্তের ফ্ল্যাট ছেড়ে চলে গেলেন, তা নিয়েও জোর শোরগোল শুরু হয়েছে। তবে পুলিস এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য করছে না। অত্যন্ত গোপনে সুশান্তের মৃত্যুর তদন্ত এগোচ্ছে পুলিস।

প্রসঙ্গত, দিশার সাহায্য়ে নাকি একটি ওয়েব সিরিজের প্রস্তাব পান সুশান্ত। ১৪ কটির পারিশ্রমিকে ওই ওয়েব সিরিজের সঙ্গে রফা হয় সুশান্তের। দিশার মৃত্য়ুর পর সেই প্রজেক্ট হাতছাড়া হওয়ার চিন্তায় ছিলেন কাই পো চে অভিনেতা! উঠছে এমন প্রশ্নও।


‘আমি ভাল নেই’, আত্মহত্যার আগে আচমকাই বন্ধুকে মেসেজ করে জানান সুশান্ত

​সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার পর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রয়াত অভিনেতার বন্ধু মুকেশ ছাবড়াকে ডেকে পাঠায় পুলিস। মৃত্যুর কয়েকদিন আগে মুকেশ ছাবড়াকে মেসেজ করেন সুশান্ত। সেখানেই বন্ধুকে অভিনেতা জানান, তিনি ভাল নেই। তবে কেন ভাল নেই সুশান্ত! এই প্রশ্ন করায়, সুশান্ত পালটা বলেন, তিনি ভাল আছেন। ভাল থাকতে হবে তাঁকে।

সেদিন সুশান্তের কথায় সেভাবে কিছু বুঝতে পারেননি মহেশ। ওই ঘটনার পর এভাবে যে সুশান্ত চরম সিদ্ধান্ত নেবেন, তা কেউ কল্পনা করতে পারেননি বলেও জানান মুকেশ ছাবড়া।

এদিকে সুশান্তের মৃত্যুর ৩ দিন পর বৃহস্পতিবার ব্যান্দ্রা থানায় ডেকে পাঠানো হয় সুশান্তের বিশেষ বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীকে। জিজ্ঞাসাবাদের সময়ই রিয়ার বয়ান রেকর্ড করা হবে বলে খবর।


সুশান্তের সঙ্গে ঝগড়া, মৃত্যুর আগের দিন রাতে অভিনেতার ফোন ধরেননি রিয়া!

সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে উঠে আসছে হাজার প্রশ্ন। এসবের মাঝেই সামনে এসেছে নতুন তথ্য। যা তাঁর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে। বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি-ই কি সুশান্তের মানসিক ভাবে ভেঙে পড়ার কারণ? উঠে আসছে এমন প্রশ্ন।

ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা যাচ্ছে, লকডাউনেক মধ্যেও সুশান্তের সঙ্গেই থাকছিলেন বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী। তবে কয়েকদিন আগেই নাকি রিয়া বাড়ি চলে গিয়েছিলেন। আবারও আরও একটি সূত্র বলছে রিয়াকে বাড়ি পাঠিয়েছিলেন সুশান্ত নিজেই। পরে আবার, ঝগড়া মিটিয়ে নেওয়ার জন্য রিয়াকে ফোনও করেন সুশান্ত, তবে তিনি ফোন তোলেননি। বেশকিছুদিন ধরে সুশান্তের ব্যবহারে পরিবর্তন লক্ষ্য করেছিলেন সুশান্তের এক দিদি। সন্দেহ হওয়ায় সুশান্তের বান্দ্রার ফ্ল্যাটেও পৌঁছোন তাঁর দিদি। তবে সুশান্ত তাঁকে কিছু জানিয়েছিলেন কিনা তা স্পষ্ট নয়। এদিকে মৃত্যুর আগের দিন সুশান্ত তাঁর বান্ধবী রিয়াকে আবারও ফোন করেন বলে কল লিস্ট থেকে জানা যাচ্ছে, যদিও ওইদিনও তিনি ফোন ধরেননি। এরপরেই বন্ধু মহেশ শেঠিকে ফোন করলে তিনিও ফোন ধরেননি বলে খবর।

সুশান্ত গত ৬ মাস ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। যে কারণে তিনি মনোবিদের পরামর্শে ওষুধ খাচ্ছিলেন। সুশান্তের বন্ধু মহেশ শেঠির দাবি, বেশকিছুদিন ধরে অভিনেতা নাকি ওষুধ খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছিলেন। সেটাও কি রিয়ার কারণে? উঠছে প্রশ্ন…।

এদিকে সুশান্তের মৃত্যুর ঘটনায় তদন্তে নেমে অভিনেতার ফোন ও ল্যাপটপ নিয়ে গিয়েছে মুম্বই ক্রাইম ব্রাঞ্চ। সবকিছু খতিয়ে দেখার কাজ চলছে। অন্যদিকে মুম্বই পুলিসের তরফে রিয়া ও মহেশ শেঠিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলেও জানা গিয়েছে। সুশান্তের মৃত্যুর ঠিক পরপর তাঁর এক তুতো দাদা জানিয়েছেন, নভেম্বরে সুশান্তের বিয়ের কথা হচ্ছিল। তবে সেটা কার সঙ্গে তা স্পষ্ট নয়।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %