চলে গেলেন খ্যাতিমান কণ্ঠশিল্পী এন্ড্র কিশোর

0 0
Read Time:3 Minute, 47 Second

দ্যা ডেইলি নিউজ | এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক : চলে গেলেন খ্যাতিমান কণ্ঠশিল্পী এন্ড্র কিশোর (৪ নভেম্বর ১৯৫৫ – ৬ জুলাই ২০২০) । সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিটে রাজশাহী মহানগরীর মহিষবাথান এলাকায় বোনের বাসায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন এই খ্যাতিমান কণ্ঠশিল্পী।

সোমবার সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিটে রাজশাহী মহানগরীর মহিষবাথান এলাকায় বোনের বাসায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন খ্যাতিমান কণ্ঠশিল্পী এন্ড্রু কিশোর।

তার পারিবারিক বন্ধু ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শফিকুল আলম বাবু এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ‘এন্ড্রু কিশোরের শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় গত দুই দিন ধরে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। আজ সন্ধ্যায় তিনি মারা গেছেন।’

ব্লাড ক্যান্সার নিয়ে গত বছরের অক্টোবর থেকে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন জনপ্রিয় এই কণ্ঠশিল্পী। হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পাওয়ার পর ১১ জুন রাতে বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকায় আসেন। পরের দিন তিনি ঢাকা থেকে রাজশাহী চলে আসেন। এরপর থেকে তিনি তার বোন ডা. শিখার বাড়িতে ছিলেন। সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন এই গুণী কণ্ঠশিল্পী।

এন্ড্রু কিশোরের জন্ম রাজশাহীতে। সেখানেই কেটেছে তার শৈশব ও কৈশোর। প্রাথমিকভাবে সংগীতের পাঠ তিনি শুরু করেন রাজশাহীর আবদুল আজিজ বাচ্চুর কাছে। একসময় গানের নেশায় রাজধানীতে ছুটে আসেন। মুক্তিযুদ্ধের পর তিনি রবীন্দ্র সঙ্গীত, নজরুল সঙ্গীত, আধুনিক গান, লোকগান ও দেশাত্মবোধক গানে রেডিওর তালিকাভুক্ত শিল্পী হন।

১৯৭৭ সালে আলম খানের সুরে ‘মেইল ট্রেন’ চলচ্চিত্রে ‘অচিনপুরের রাজকুমারী নেই যে তার কেউ’ গানের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে প্লেব্যাকযাত্রা শুরু হয় এন্ড্রু কিশোরের। এরপর তো রীতিমতো ইতিহাস! চলচ্চিত্রের গানের কিংবদন্তিতে পরিণত হন তিনি।

এন্ড্রু কিশোরের কণ্ঠে ভীষণ জনপ্রিয় গানের মধ্যে রয়েছে ‘জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প’, ‘হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস’, ‘ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে’, ‘আমার সারা দেহ খেয়ো গো মাটি’, ‘আমার বুকের মধ্যেখানে’, ‘আমার বাবার মুখে প্রথম যেদিন শুনেছিলাম গান’, ‘ভেঙেছে পিঞ্জর মেলেছে ডানা’, ‘সবাই তো ভালোবাসা চায়’, ‘পড়ে না চোখের পলক’, ‘পদ্মপাতার পানি’, ‘ওগো বিদেশিনী’, ‘তুমি মোর জীবনের ভাবনা’, ‘আমি চিরকাল প্রেমের কাঙ্গাল’ প্রভৃতি। তিনি আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %