ব্যর্থতা, দুর্নীতি আড়াল করতে সরকার ‘কালো আইন ব্যবহার’ করছে: রিজভী

0 0
Read Time:4 Minute, 45 Second

দ্যা ডেইলি নিউজ / ID/19 06 2020/TDNB/000109

করোনাভাইরাস মহামারিতে সরকার তাদের দুর্নীতি ও ব্যর্থতা আড়াল করতে ডিজিটাল নিরাপত্তার মতো ‘কালো আইন’ ব্যবহার করছে বলে শুক্রবার বিএনপি অভিযোগ করেছে।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘যারা আওয়ামী লীগের ব্যর্থতা আর দুর্নীতির কথা মনে করিয়ে দিচ্ছেন, তাদের তাড়াহুড়ো করে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে, রাতের অন্ধকারে তুলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, গুম করা হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় মন্তব্য করার কারণে দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, একজনকে বরখাস্ত করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপি এবং ছাত্রদলের কয়েকজন নেতাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মতো কালো আইন প্রয়োগের মাধ্যমে গুম, মিথ্যা মামলা ও গ্রেপ্তার এখন এ ভয়াল করোনাভাইরাসের তাণ্ডবের মধ্যেও নিত্যদিনের ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি নেতা এ অভিযোগ করেন।

তিনি অভিযোগ করেন, ‘সরকারের দুর্নীতির সংবাদ আড়াল করার জন্য প্রায় প্রতিদিনই গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের ডেকে নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ভয়ভীতি প্রদর্শন ও হয়রানি করছে। বিরোধী দল ও গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের ওপর তাদের প্রণীত সব কালো আইন নির্বিচারে প্রয়োগ করছে।’

রিজভী বলেন, সরকার দেশে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি করায় মানুষ স্বাধীনভাবে কথা বলতে পারছে না। ‘সরকারের চরম ব্যর্থতার কথাও বলা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কালো আইন করে মানুষের সত্য প্রকাশের কণ্ঠ বন্ধ করে দিয়েছে সরকার।’

তিনি এ জাতীয় পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পেতে এবং মত প্রকাশের স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠার জন্য জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

রিজভী বলেন, সরকারের ব্যর্থতা এবং অব্যবস্থাপনার কারণে করোনাভাইরাস দেশে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে।

বিএনপি নেতা অভিযোগ করেন, ‘করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পেতে ১৫ দিন পর্যন্ত সময় লাগছে, ল্যাবে নমুনার স্তুপ জমা হয়ে আছে। দেশের স্বাস্থ্য খাত ভেঙে পড়েছে।’

তিনি বলেন, দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার বেহাল অবস্থায় জনমনে আতঙ্ক ও উদ্বেগ বৃদ্ধি পাচ্ছে। ‘দেশের ৬৪ জেলার মধ্যে ৪৭টি জেলাতেই আইসিইউ নেই। করোনাভাইরাসের এ মহামারির সময়ে মানুষের জীবনের বিনিময়ে স্বাস্থ্য খাতের বিপন্ন ও ভঙ্গুর ছবি প্রকাশ হয়ে পড়েছে।’

রিজভী বলেন, ২০১৪ সালের ২৩ নভেম্বর দেশের তৎকালীন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম জাতীয় সংসদে বলেছিলেন, চলতি মাস থেকেই জেলা পর্যায়ের সরকারি হাসপাতালগুলোতে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) ও হৃদরোগীদের জন্য বিশেষ পরিচর্যা কেন্দ্রের (সিসিইউ) কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। মোহাম্মদ নাসিমের প্রতিশ্রুতির ঠিক ছয় বছর পরও তা বাস্তবায়ন হয়নি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্প্রতি জাতীয় সংসদে বলেছেন, প্রতিটি জেলা হাসপাতালে আইসিইউ স্থাপন করা হবে। আওয়ামী লীগ সরকারের বারবার একইরকম প্রতিশ্রুতি শুধুই ‘ফাঁকা বুলি’র মতো ।

তিনি বলেন, স্বাস্থ্য খাতের বর্তমান পরিস্থিতিতে প্রমাণিত হয়েছে সরকার বছরের পর বছর উন্নয়নের নামে জনগণের সাথে প্রতারণা করে আসছে।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %